Don't Miss
Home / Uncategorized / করোনা কালীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর বিভাগের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা দরকার আমিনুল ইসলাম আকাশ

করোনা কালীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর বিভাগের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা দরকার আমিনুল ইসলাম আকাশ

করোনা কালীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর বিভাগের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা দরকার
আমিনুল ইসলাম আকাশ
ফরিদ উদ্দিন বিডিফোকাস২৪:
করোনা কালীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর বিভাগের কর্মরত সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা দরকার বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ট্যাক্সসেস এমপ্লয়ীজ ওয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও কর পরিদর্শক জনাব মোঃ আমিনুল ইসলাম আকাশ ৷ তিনি বলেন রাজস্ব ভান্ডারকে চলমান রাখার জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অধীন আয়কর বিভাগের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা জন্য তাৎক্ষণিক এ্যাম্বুলেন্স, অক্সিজেন সিলিন্ডার, আইসোলেশন ওয়ার্ড , স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার, পিপিই, মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস ও অন্যান্য মেডিকেল ইকুইপমেন্ট এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেন ৷ তিনি আরো বলেন ইতিমধ্যে এসোসিয়েশনের পক্ষ হতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর স্বাস্থ্য সামগ্রীসহ নানা বিধি সহযোগিতা চেয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।।।
জনাব মোঃআমিনুল ইসলাম আকাশ অত্যান্ত দুঃখের সহিত জানান যে ইতিমধ্যে আয়কর বিভাগের তিনজন আমার প্রাণপ্রিয় ও শ্রদ্ধেয় সহকর্মী প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে । তাঁরা হলেন, কর অঞ্চল-৩ ঢাকা উপ কর কমিশনার সুধাংশু কুমার সাহা, কর অঞ্চল -১৩ ঢাকা উচ্চমান সহকারি মো. সাব্বির আহমেদ এবং কর আপীল অঞ্চল-৩ ঢাকা নিরাপত্তা প্রহরী অশোক কুমার দাস। তাঁদের সকলের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।
আকাশ বলেন, আমার শ্রদ্ধেয় অনেক সহকর্মী এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আমি তাদের সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছি।
বর্তমানে করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে চলেছেন জাতীয় রাজস্ব আহরণ কারী সরকারি প্রতিষ্ঠান জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অধীন আয়কর অনুবিভাগ এর প্রত্যেকটি কর অঞ্চল। সরকারি সাধারণ ছুটি ও টানা লকডাউন এর মধ্যেও সীমিত পরিসরে আয়কর অফিস খোলা রেখে দেশের রাজস্ব আহরণ কাজে নিয়োজিত রয়েছেন আয়কর অফিসের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ।
জনাব মোঃ আমিনুল ইসলাম আকাশ বলেন, একটি দেশের উন্নয়নের অক্সিজেন হলো কর। আর এই উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে, সরকারের নির্দেশনা মেনে কাজ করে যাচ্ছি। করোনা ঝুঁকি তো আছেই, তার পরেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের নির্দেশনা মেনে দেশের রাজস্ব ভাণ্ডারকে সমৃদ্ধ করতে চাই। আমি আমার সহকর্মীদের আহ্বান জানাব আসুন আমরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে কর আহরণ করি এবং যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে রাজস্ব আহরণের কাজে মনোনিবেশ যাতে সকলে অটুট রাখতে পারি করোনা কালে এই হোক আমাদের চাওয়া। সর্বোপরি বৈশ্বিক মহামারীর সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আয় কর আহরণকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জামাদি, প্রণোদনা ভাতা, চিকিৎসা ভাতাসহ সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রদানের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট বিনীত আবেদন করছি।।।

About Admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চট্রগ্রামে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও বর্ণাঢ্য আয়োজন ৷

বিডিফোকাস২৪: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের ...